,
আপডেট

বৈশাখের খাবার

বছরের প্রথম দিন বলে কথা। বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনটির নানা আয়োজনের বড় একটা অংশ হলো খাওয়াদাওয়া। কুড়মুড়ে মুখরোচক নানা ধরনের ঐতিহ্যবাহী খাবার রাস্তায় বের হলেই দেখা যায়। তবে চাইলে ঘরেও বানিয়ে নিতে পারবেন। কুড়মুড়ে কয়েকটি খাবারের রেসিপি দিয়েছেন সিতারা ফেরদৌস।

কদমা

উপকরণ: চিনি ২ কেজি ও পানি ২ কাপ।
প্রণালি: চিনি ও পানি চুলায় দিয়ে ফুটে উঠলে পানিতে ১ চামচ শিরা দিন। চিনি জমাট বাঁধলে ছড়ানো পাত্রে আইসিং সুগার ছিটিয়ে শিরা ঢেলে অল্প গরম থাকা অবস্থায় রোল করে খুঁটিতে ঝুলিয়ে টানতে হবে। আবার ভাঁজ করুন। এভাবে অনেকবার করলে যখন ভেতরটা ফাঁপানো হবে তখন চপিংবোর্ডে আইসিং সুগার ছিটিয়ে রোল করে নিন। কদমা বানানোর মেকারে চাপ দিয়ে কেটে কদমার আকারে কেটে নিতে হবে। বাতাসে রেখে শুকিয়ে নিন।

বাতাসা

উপকরণ: চিনি ৩ কাপ, পানি আধা কাপ, বেকিং পাউডার ১ চা-চামচ, গোলাপ জল ১ টেবিল চামচ ও আইসিং সুগার আধা কাপ।
প্রণালি: চিনি, পানি, গোলাপ জল একসঙ্গে চুলায় দিন। ভালো করে ফুটে উঠলে কড়াইয়ে ফেনা ভরে গেলে বেকিং পাউডার দিয়ে নাড়ুন। ছড়ানো পাত্রে আইসিং সুগার ছিটিয়ে চামচে করে পাত্রে ছোট ছোট বাতাসার আকারে রাখতে হবে। ঠান্ডা হলে বয়ামে ভরে রাখুন।

মুরলি ও মির চিনি

মুরলি

উপকরণ: ময়দা আধা কাপ, ছোলার ডালের বেসন ১ কাপ, তেল ৩ টেবিল চামচ, ঘি ৩ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো ও বেকিং পাউডার আধা চা-চামচ।
প্রণালি: ময়দার সঙ্গে সমস্ত উপকরণ মিলিয়ে ভালো করে ময়ান দিয়ে অল্প পানি দিয়ে ভালো করে মথে ১ ঘণ্টা ঢেকে রাখতে হবে। ১ সেন্টিমিটার পুরু করে রুটি বেলে আধা ইঞ্চি চওড়া ও ৩ ইঞ্চি লম্বা করে কেটে ডুবো তেলে মৃদু আঁচে ঘিয়া রং করে ভেজে ওঠান।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

উপকরণ: আখের গুড় ২০০ গ্রাম, চিনি ১০০ গ্রাম ও পানি আধা কাপ।
প্রণালি: সমস্ত উপকরণ একসঙ্গে চুলায় দিয়ে ভালো করে ফুটে উঠলে শিরা চটচট হলে চুলা থেকে নামিয়ে নিন। মুরলি শিরায় দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে শিরা থেকে উঠিয়ে ঠান্ডা করে বয়ামে ভরে রাখুন।

মির চিনি

উপকরণ: ময়দা ১ কাপ, ঘি ২ টেবিল চামচ, তেল ২ টেবিল চামচ, লবণ সামান্য, বেকিং পাউডার সিকি চা-চামচ ও তেল ভাজার জন্য।
শিরার উপকরণ: চিনি ২৫০ গ্রাম, পানি কাপের তিন ভাগের এক ভাগ।
প্রণালি: মুরলি নিয়মে করতে হবে।

চিনির খেলনা

উপকরণ: চিনি ২ কেজি, পানি ২ কাপ, গোলাপ জল ২ টেবিল চামচ ও আইসিং সুগার ২ কাপ।
প্রণালি: চিনি, পানি, গোলাপ জল একসঙ্গে চুলায় দিন। ভালো করে ফুটে উঠলে অল্প চিনির শিরা পানিতে ঢেলে দেখতে হবে। চিনি জমাট বাঁধলে পছন্দমতো ছাঁচে আইসিং সুগার ছিটিয়ে গরম চিনির শিরা ঢেলে দিন। ঠান্ডা হয়ে জমাট বাঁধলে বয়ামে ভরে রাখতে হবে।

মুড়কি

উপকরণ: খই ৫০০ গ্রাম, গুড় ৬ গ্রাম ও চিনি ১০০ গ্রাম।
প্রণালি: গুড় ও চিনি আধা কাপ পানি দিয়ে চুলায় গলিয়ে নিন। বুদ্বুদ উঠলে চুলা থেকে নামিয়ে ছড়ানো পাত্রে খই রেখে অল্প অল্প করে গুড় খইয়ে ঢালতে হবে আর নাড়তে হবে। এভাবে সব গুড় দিয়ে ভালো করে নেড়ে ঠান্ডা হলে বয়ামে ভরে রাখুন।

তিলের চিক্কি

উপকরণ: তিল ৩ কাপ, গুড় ১ কাপ, এলাচিগুঁড়া আধা চা-চামচ, ঘি ১ টেবিল চামচ ও পানি সিকি কাপ।
প্রণালি: তিল শুকনা খোলায় টেলে নিন। পানি, গুড় একসঙ্গে চুলায় দিয়ে ফোটান। আঠালো হয়ে এলে ঘি, এলাচিগুঁড়া, ২ কাপ তিল দিয়ে চুলায় অল্প জালে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে চটচটে হলে চুলা থেকে নামিয়ে নিন। অল্প ঠান্ডা হলে পানিতে হাত ভিজিয়ে তিলের চিক্কির আকারে তিলে গড়িয়ে নিতে হবে। এভাবে সবগুলো করতে হবে।

সূত্র: প্রথম আলো

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply