,
আপডেট

৭ টি উপায়ে সমাধান করুন ঘুমের সমস্যা

ঘুম সমস্যা সবচাইতে বড় সমস্যাগুলোর মধ্যে একটি। ঘুম না হলে বা ঘুমে সমস্যা হলে অথবা ঘুম কম হলে আমাদের স্বাভাবিক কর্মকাণ্ডে এর প্রভাব পড়ে মারাত্মকভাবে। এই ঘুমের সমস্যা থেকেই নানা ধরণের প্রাণঘাতী রোগ দেহে বাসা বাঁধতে পারে। তাই ঘুম সমস্যা সমাধান করা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

১) দুপুরের খাবারের পর থেকে চা/কফি পান করবেন না –

যারা ঘুমের সমস্যায় ভোগেন তাদের চা/কফি থেকে দূরে থাকাই ভালো। বিশেষ করে দুপুরের খাবারের পর থেকে একেবারেই চা/কফি পান করা উচিত নয়। কারণ চা/কফির ক্যাফেইন ঘুমের উদ্রেকে বাঁধা প্রদান করে থাকে।

২) আপনার কতোটুকু ঘুমের প্রয়োজন তা নির্ণয় করুন –

আপনার কতোটুকু ঘুমের প্রয়োজন তা নির্ণয় করে নিন। ঘুম পেলে ঘুমিয়ে পড়ে দেখুন আপনাআপনি কতোটা সময় পর ঘুম ভাঙে। ঠিক ততোটুকু সময়ই ঘুমানোর চেষ্টা করুন।

জোর করে ঘুম থেকে উঠা এবং জোর করে বেশি ঘুমাবেন না একেবারেই। ৭-৮ ঘণ্টা বা যতোটুকু ঘুমের প্রয়োজনই থাকুক না কেন যখন ঘুম থেকে উঠতে হবে তার হিসেব অনুযায়ী ঘুমাতে চলে যান।

৩) শোবার ঘর থেকে সকল ধরণের ঘুম বিরোধী জিনিস সরিয়ে ফেলুন –

টিভি, ল্যাপটপ এমনকি প্রয়োজনে মোবাইল ফোন সহ ঘুমাতে সমস্যা সৃষ্টি করে এমন সকল জিনিস শোবার ঘর থেকে সরিয়ে ফেলুন। এবং আপনার নিজের জন্য আরামদায়ক জিনিস ব্যবহার করুন বিছানায়।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

৪) রাতে নীল রঙের আলো একেবারেই ব্যবহার করবেন না –

মেলাটোনিন নামক একটি হরমোন আমাদের ঘুমের উদ্রেক করে। নীল আলো আমাদের দেহে এই মেলাটোনিন উৎপন্ন করতে বাঁধা প্রদান করে। ফলে আমাদের ঘুম হয় না বা ঘুমাতে সমস্যা হয়। তাই রাতে নীল রঙের আলো ব্যবহার করবেন না একেবারেই।

৫) প্রতিদিন একই সময়ে ঘুম থেকে উঠার চেষ্টা করুন –

নিজের ঘুমের সাইকেল ঠিক করে নিন। প্রতিদিন একই সময়ে ঘুম থেকে উঠার অভ্যাস তৈরি করে ফেলুন। এতে করে রাতের সাইকেল আপনাআপনি আপনার কাজের সাথে মিলিয়ে তৈরি হয়ে যাবে। এবং ঘুমের সমস্যারও সমাধান হবে।

৬) ছুটির দিনে বেশি ঘুমিয়ে ফেলবেন না –

ছুটির দিন পেলে অনেক বেশি ঘুমিয়ে ফেলার অভ্যাস রয়েছে অনেকেরই। এই কাজটি আপনার ঘুমের সাইকেল নষ্ট করে ফেলে। যার ফলে পরবর্তী দিনগুলোতে ঘুমের সমস্যা তৈরি হয়। তাই ছুটির দিন পেলেও বেশি ঘুমাতে যাবেন না।

৭) রাতে বিছানায় বসে কিছুক্ষণ মেডিটেশন করুন –

আপনার জন্য যতোটা ঘুম প্রয়োজনীয় সে হিসেব করে রাতে ঘুমুতে যাবেন। এবং সকল ধরণের কাজ বন্ধ করে বিছানায় বসে খানিকক্ষণ মেডিটেশন করে নেবেন। এভাবে সকল ধরনের চিন্তা ও দুশ্চিন্তা দূর করার চেষ্টা করে ঘুমুতে গেলে ভালো ঘুম হবে।

সৌজন্যে – প্রিয়.কম

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply