,
আপডেট

হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণগুলো সম্পর্কে জেনে নিন

যখন হৃদপিণ্ডের কোনো শিরায় রক্ত জমাট বেঁধে হৃদপিণ্ডে রক্ত প্রবাহে বাঁধার সৃষ্টি করে তখন হার্ট অ্যাটাক হয়ে থাকে। বয়স, উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা, উচ্চ মাত্রায় খারাপ কোলেস্টোরল, অতিরিক্ত মোটা, অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস, মদ্যপান, মানসিক চাপ এবং শারীরিক পরিশ্রম না করা হার্ট অ্যাটাকের মূল কারণ।

অনেক সময় হার্ট অ্যাটাক হলেও সঠিকভাবে বোঝা সম্ভব হয় না। সমস্যা হলো কোনো কোনো সময় বুকে কোনো ধরণের ব্যথা ছাড়াই হার্ট অ্যাটাক হতে পারে, যার কারণে হার্ট অ্যাটাক হয়েছে কিনা তা খুব ভালো করে বোঝা যায় না। সেকারণে শুধু বুকে ব্যথার সাথে হার্ট অ্যাটাক জড়িয়ে নিয়ে বসে থাকলে চলবে না, জানতে হবে অন্যান্য লক্ষণগুলো।

১) দুর্বলতা এবং ছোটো ছোটো শ্বাসপ্রশ্বাস –

কার্ডিওলজিস্টগন বলেন, ‘হার্ট অ্যাটাকের প্রায় ১ মাস আগে থেকেই দুর্বলতা এবং ছোটো ছোটো শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা শুরু হয়ে যায়’। কোনো কারণ ছাড়াই শারীরিক দুর্বলতা এবং খুব সহজেই হাঁপিয়ে উঠে ঘন ঘন শ্বাস নেয়ার সমস্যা শুরুর ব্যাপারে সতর্ক থাকুন। শারীরিক দুর্বলতা এবং শ্বাসপ্রশ্বাস ছোটো হয়ে আসা প্রধান লক্ষণ যে আপনার হৃদপিণ্ডের প্রয়োজন বিশ্রামের।

২) অতিরিক্ত ঘাম হওয়া (দিন ও রাত) –

হুট করেই অতিরিক্ত ঘেমে যাওয়ার সমস্যা শুরু হলে সে ব্যাপারটি অবহেলা করবেন না। কারণ এটিও হার্ট অ্যাটাকের পূর্ব লক্ষণ। যখন হার্ট ব্লক হয় তখন রক্ত সঞ্চালনে হার্টের অনেক বেশি কাজ করতে হয়।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

এতে করে অনেক চাপ পড়ে থাকে যার ফলে ঘামের সৃষ্টি হয়। এবং এই ঘাম সাধারণত অনেক ঠাণ্ডা হয়ে থাকে। এইধরনের সমস্যাকে অবহেলা না করে ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়াই উত্তম।

৩) হজমে সমস্যা, মাথা ঘোরানো এবং বমি –

গবেষণায় দেখা যায় হার্ট অ্যাটাকের কিছু পূর্ব থেকে অনেকেই বদহজমের সমস্যা এবং গ্যাস্ট্রোইনটেস্টিনাল সমস্যায় পড়ে থাকেন। এছাড়াও বুক জ্বালাপোড়ার সমস্যা যা আমরা অনেক স্বাভাবিকভাবেই নিয়ে থাকি তাও হতে পারে হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ। এর পাশাপাশি হুট করে কোনো কারণ ছাড়াই মাথা ঘোরানো, বমি ভাব হওয়া এবং বমি করার বিষয়গুলো অবহেলা করবেন না।

৪) বুকে ব্যথা, চাপ অনুভব করা এবং অস্বস্তিবোধ –

অনেক সময় হার্ট অ্যাটাকের সময় বুকে ব্যথা অনুভূত হয় না। এসকল ক্ষেত্রে বুকে অস্বস্তিকর অনুভূতি এবং বুকে চাপ অনুভব করার বিষয়টিতে নজর দিতে হবে।

অনেকের কাছে মনে হবে বুকে অনেক ভারী কিছু চেপে বসে আছে এবং সেই সাথে শ্বাস নিতে সমস্যা হতে পারে। এসকল ব্যাপার নজরে পড়লে দ্রুত ডাক্তারের শরণাপন্ন হোন।

৫) দেহের অন্যান্য অঙ্গে ব্যথা অনুভব  –

শুধু বুকে ব্যথাই নয় দেহের অন্যান্য বিশেষ কিছু অঙ্গে ব্যথা অনুভব হওয়াও হতে পারে হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ। পেটের উপরের অংশ, কাঁধ, পিঠ, গলা, দাঁত ও চোয়াল এবং বাম বাহুতে হুট করে অতিরিক্ত ব্যথা হওয়া বা চাপ অনুভব অথবা আড়ষ্টতা অনুভব করার বিষয়টিও হতে পারে হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ।

সৌজন্যে – প্রিয়.কম

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply