,
আপডেট

ঘুমের সমস্যা দূর করবে চেরি ফলের জুস

রাতে ঘুম হয় না? অথচ আপনি চান নির্ভেজাল একটা ঘুম ঘুমিয়ে নিতে, তাই তো? ক্ষতিকর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া যুক্ত ঘুমের ঔষধ খেয়ে আর ঘুমাতে হবে না। আপনার জন্য এসে গেছে নতুন কিছু প্রাকৃতিক উপাদান।

হ্যাঁ, প্রাকৃতিক উপাদানটি আর কিছু নয়, টক চেরি ফলের জুস। এক্সপেরিমেন্টাল বায়োলজি ২০১৪ সেমিনারে এক গবেষণায় প্রাপ্ত এমনি এক তথ্য প্রকাশ করেছে। তারা জানিয়েছে, দিনে দুইবার যদি আপনি টক চেরি ফলের জুস পান করেন, তবে অতিরিক্ত ৯০ মিনিট আপনি ঘুমাতে পারবেন।

লুইসিয়ানা স্টেট ইউনিভার্সিটির গবেষকরা সাত জন পূর্ণবয়স্ক ব্যক্তি, যারা দীর্ঘদিন ধরে অনিদ্রা রোগে ভুগছিলেন, তাদের উপর এক গবেষণা চালিয়ে দেখেছেন আট আউন্স টক চেরি ফলের রস প্রতিদিন দু’বার করে পান করলে যে কোন ঘুমের ঔষধের তুলনায় গড়ে ৮৪ মিনিট বেশি ঘুমাতে পারে। আর তারা এই গবেষণা চালিয়েছে টানা দুই সপ্তাহ ধরে।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

‘চেরি জুস নিদ্রাআনয়নকারী হরমোন মেলাটোনিন এবং অ্যামিনো অ্যাসিড ট্রিপটোফেনের প্রাকৃতিক উৎস’- বলেছেন গবেষণা সহলেখক ফ্রাঙ্ক এল গ্রিনওয়ে। তিনি আরো বলেন, টক চেরি ফলের প্রনথোসাইনিডিনস বা রুবিলাল পিগমেন্টে আছে এমন এনজাইম যা প্রদাহ দূর করে দীর্ঘ ঘুমের নিশ্চয়তা দেয়।

কিউই ফল-

আমেরিকার ৬৫ বছরের বেশি প্রাপ্তবয়স্কদের এক তৃতীয়াংশ ইনসোমনিয়াতে ভুগে- এমনটাই দাবী করেন গ্রিনওয়ে। ঘুমের ঔষধ তাদের শরীরে নানা পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করে। ফলে তারা একদিক দিয়ে ঘুমাতে পারলেও নিজেদের আর দিক দিয়ে ক্ষতিই করে ফেলে। আর চেরির রস কোন রকম ক্ষতি করা ছাড়াই সেই ঘুম আনতে পারে।

চেরি ফল পছন্দ না করলে খেতে পারেন কিউই ফল। সম্প্রতি চীনা গবেষণায় দেখা যায় কিউই ফল ১৩% ঘুমের সময় বৃদ্ধি করে। নিয়মিত খেলে চার সপ্তাহ পর ২৯% ঘুম বৃদ্ধি পায়।

যাদের ঘুমের সমস্যা আছে, আপনারাও চেষ্টা করতে পারেন চেরি ফলের রসের মাধ্যমে ঘুম আনার। যদি চেরি ফলের রসেই ঘুম আসে, তবে কী দরকার ঘুমের ঔষধের যা আবার শরীরের ক্ষতি করে।

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply