,
আপডেট

বাইরে খেতে যাচ্ছেন? দয়া করে আরেকবার ভেবে দেখুন!

অনেক সময়েই আলসেমির জন্য বাসায় রান্নাবান্না করতে ইচ্ছে করে না অথবা ভালো কিছু খাওয়ার জন্য বাইরে যেতে ইচ্ছে করে। আমরা ভেবে থাকি মাঝে মাঝে এভাবে বাইরে খেলে ক্ষতি নেই। কিন্তু বাইরে খাওয়ার ইচ্ছে হলে সেই ইচ্ছেটাকে দমন করুন এবং বাড়িতেই রান্না করে খাওয়ার ব্যবস্থা করুন। কারণ এতে আপনার স্বাস্থ্য বেশ কয়েক রকমের ক্ষতির হাত থেকে বেঁচে যাবে।

বাইরে খেতে গেলে খাওয়া বেশি হয়

যে রকমের রেস্টুরেন্টেই খাওয়া হক না কেন, বাইরে খেতে গেলে খাওয়া বেশি হয়েই যায়। বাইরে খাওয়ার ফলে দৈনিক ২০০ ক্যালোরির মতো বেশি খাওয়া হয়ে যায়। শুধু তাই নয়, বেশি বেশি স্যাচুরেটেড ফ্যাট, চিনি এবং সোডিয়াম খাওয়া হয়।

স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া হয় না

বাড়িতে থাকলে আমরা স্বাস্থ্যকর খাবার বেছে নেই। কম তেল দিয়ে রান্না করি, খাবারে লবণ, চিনি কম দেই, সবজি খাই। কিন্তু বাইরে খেতে গিয়ে কেউ কি কম চিনি বা ফ্যাটযুক্ত খাবার বেছে নেই। ভাবি বাইরে খেতে এসেছি যখন একটু ভারি খাবারটাই খাই! আর এভাবে অস্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া হয়ে যায়।

বাড়িতে রান্না করে খেলে আয়ু বাড়ে

হ্যাঁ, ব্যাপারটা সত্যি। গবেষণায় দেখা যায়, সপ্তাহে পাঁচ দিন বাসায় রান্না করে যারা খাওয়া দাওয়া করেন, এক দশক পরেও তাদের বেঁচে থাকার সম্ভাবনা বেশি হয় তাদের তুলনায় যারা বাইরে খাওয়া দাওয়া করতে অভ্যস্ত।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

বাইরে খাওয়া দাওয়ার ফলে ওবেসিটির সম্ভাবনা বেড়ে যায়

বেশ কিছু গবেষণায় বাইরে খাওয়া এবং ওবেসিটির মাঝে সংযোগ খুঁজে পাওয়া যায়। যেমন ২০০৪ সালের একটি গবেষণায় দেখা যায়, যারা নিয়মিত বাইরে খেয়ে থাকেন, মধ্যবয়সে গিয়ে তাদের ওজন অতিরিক্ত বেড়ে যেতে পারে এবং ইনসুলিন রেসিস্ট্যান্স বেড়ে যায়।

আরেকটি গবেষণায় দেখা যায় যারা বাসায় রান্না করা খাবার খান না তাদের বিএমআই বেশি হয় এবং শরীরে চর্বির পরিমাণও যায় বেড়ে।

নিজে রান্না করলে আমরা স্বাস্থ্যকর খাবারের প্রতি গুরুত্ব দেই

বাইরে খেলে মূলত ফাস্টফুড রেস্টুরেন্টে খেলে পোড়া তেলে ডিপ ফ্রাই করা মুচমুচে খাবার খাওয়া হয়। বাড়িতে এমন কিছু খাবার সম্ভাবনা একদমই নেই। আর বাড়িতে যেহেতু আমরা অনেক যত্ন করে নিজের পরিবারের জন্য খাবার তৈরি করি, তাই সেটা অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর হয় থাকে।

বাচ্চারা স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে শেখে

বাইরে খেতে গেলে অস্বাস্থ্যকর খাবারের প্রতি বাচ্চাদের আকর্ষণ তৈরি হয়ে যায় যা মোটেই ভালো নয়। বাড়িতে রান্না করার একটা সুবিধা হলো, বাচ্চারা রান্নায় সাহায্য করতে পারে, যার ফলে বাড়ির খাবারের প্রতি তাদের আগ্রহ জন্ম নেয়। এতে কম বয়স থেকেই স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া অভ্যাস গড়ে ওঠে।

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply