,
আপডেট

স্বাস্থ্য সম্পর্কিত যে মারাত্মক ভুলগুলো প্রতিদিন করছেন আপনি!

স্বাস্থ্য সম্পর্কে আপাত দৃষ্টিতে আমাদেরকে বেশ সচেতন মনে হলেও আসলে বেশ কিছু ব্যাপারে আমরা আমাদের স্বাস্থ্যের অবহেলা করি। কিছু অবহেলা অবশ্য একেবারেই অজ্ঞতার কারণেই করা হয়ে থাকে। কিন্তু আমাদের অজ্ঞতার এই খেসারত দিতে হয় আমাদেরকেই।

নিজেরই করা অজানা অনেক ভুলের কারণে প্রতিনিয়ত ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে আমাদের স্বাস্থ্য। জেনে নিন তেমনই ৪টি ভুল সম্পর্কে যেগুলোর কারনে প্রতিদিন আমরা আমাদের স্বাস্থ্যের ক্ষতি করছি।

প্লাস্টিকের বাক্সে খাবার গরম করা

প্লাস্টিকের বাক্সে খাবার গরম করাটা অভ্যাসে পরিণত হয়েছে অনেকেরই। বিশেষ করে যারা অফিসের জন্য টিফিন নিয়ে যান তারা অধিকাংশ সময়েই প্লাস্টিকের বাক্সেই খাবার গরম করে ফেলেন মাইক্রোওয়েভে।

আপনার প্লাস্টিকের বাক্সটি গরম করার ফলে প্লাস্টিক থেকে ক্ষতিকর রাসায়নিক উপাদান নির্গত হয়ে খাবারে মিশে যায়। ফলে ক্যান্সারের ঝুঁকি বৃদ্ধি পায় এবং স্পার্ম ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাই খাবার গরম করতে হলে সিরামিকের পাত্রে গরম করুন অথবা সনাতন পদ্ধতিতে চুলায় গরম করে ফেলুন খাবার।

কোমল পানীয়ের প্লাস্টিকের বোতলে পানি রাখা

নি রাখাটাও ক্ষতিকর। অনেকেই কোমল পানীয়ের বোতলে পানি রাখেন এবং সেটা কিছুক্ষণ পর পর খান। কোমল পানীয়ের বোতল গুলো সাধারণত একবার ব্যবহারের মতো করেই প্রস্তুত করা হয়।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

এ বোতলগুলো পলিইথিলিন টেরেপথেলেট নামের প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি। প্লাস্টিকের বোতলে পানি রাখলে বোতলের পানিতে হরমোন ধ্বংসকারী ক্ষতিকর উপাদান মিশে যায় এবং তা পানির মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করে যা শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

তাই পানি খাওয়ার জন্য প্লাস্টিকের বোতল ব্যবহার না করে ফুড গ্রেড প্লাস্টিকের ফ্লাক্স বা জগে পানি রাখুন। অথবা স্টিলের ফ্লাক্স বা কাঁচের জগেও পানি রাখতে পারেন।

নাস্তা খাওয়ার আগে দাঁত মাজা

সকালে ঘুম থেকে উঠে অনেকেই দাঁত ব্রাশ করেন। দাঁত ব্রাশ করার পরে নাস্তা খেয়ে আর দাঁত মাজেন না বেশিরভাগ মানুষ।

ফলে খাবার দাঁতের ফাঁকে আটকে থাকে এবং ব্যাকটেরিয়া আক্রমণ করে দাঁত ও মাড়িতে। ফলে দাঁতের ক্ষতি হয় এবং মুখে গন্ধ সৃষ্টি হয়। তাই নাস্তা খাওয়ার আগে দাঁত ব্রাশ না করে নাস্তা খাওয়ার কিছুক্ষণ পর দাঁত ব্রাশ করে নেয়া উচিত।

রাতে ঘুমানোর আগে মোবাইল ফোন ব্যবহার

রাতে ঘুমানোর আগে বেশিরভাগ মানুষই এখন স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে অথবা ফোনে কথা বলে দেরি করে ঘুমায়। গভীর রাতে মোবাইল ব্যবহারের এই অভ্যাস ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়। ফলে নানান রকমের স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দেয়। তাই রাতে ঘুমানোর জন্য বিছানা শুয়ে মোবাইল ব্যবহার না করাই ভালো।

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply