,
আপডেট

৬ টি দারুণ খাবার ভীষণ দ্রুত কমিয়ে দেবে আপনার পেটের মেদ!

পেটের মেদের সাথে খাবারের অনেক বড় একটি সম্পর্ক রয়েছে। আমাদের নানা ধরণের অস্বাস্থ্যকর কাজের পাশাপাশি একবারে বেশি খাবার, ফ্যাট ও কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ খাবার মূলত পেটের মেদ বাড়ায়। তাই আমাদের খাবার খাওয়ার সময় বুঝে শুনে খাওয়া আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য যেমন ভালো তেমনি ভালো পেটের মেদটাকে নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্যও।

একবারে বেশি না খাওয়া, নিয়মিত ব্যায়াম করার পাশাপাশি কিছু খাবার রয়েছে যা খেলে পেটের মেদ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। এমনকি এই সকল খাবার পেটের দ্রুত মেদ কমাতেও অত্যন্ত কার্যকরী।

গ্রিন টী:

গ্রিন টীর ফ্লেভানয়েডস এবং প্রাকৃতিক অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান পেটের মেদ কমাতে বেশ সহায়ক। এটি পেতে জমে থাকা মেদ দ্রুত কমিয়ে দেয়। গ্রিন টীর ইজিসিই উপাদান এই কাজটি করে থাকে।

ওমেগা৩ ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার:

খাবারে ওমেগা৩ ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার রাখলে তা পেটের মেদ কাটাতে সহায়তা করে। গবেষকগন বলেন ওমেগা৩ ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার যেমন ওয়ালনাট, তিলবীজ, মাছ ইত্যাদি খাবার তালিকায় প্রতিদিন থাকলে পেতে মেদ বাড়ার সম্ভাবনা কমে যায়।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

রসুন:

রসুন খেতে পছন্দ না হলেও রসুন পেটের মেদ কমাতে বেশ কার্যকরী একটি খাবার। এটি প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক এবং রক্তের সুগারের মাত্রা কমাতে বেশ সহায়ক বলে পেতে মেদ জমতে বাধা প্রদান করে। তাই পেটের মেদ থেকে মুক্তি পেতে চাইলে প্রতিদিন রসুন খাওয়া উচিৎ।

পুদিনা:

এক টেবিল চামচ মধু, ১ চিমটি গোলমরিচ গুড়ো এবং পুদিনা পাতা এক কাপ গরম পানিতে ৫ মিনিট ফুটিয়ে এই পানীয় পান করুন প্রতিদিন। এই পানীয়টি পেটের মেদ দ্রুত কমাবে।

দারুচিনি:

পেটের মেদ কমাতে দারুচিনির তুলনা নেই। অর্ধেক টেবিলচামচ দারুচিনি গুঁড়ো ১ কাপ পানিতে ৫ মিনিট ফুটিয়ে নিয়ে ১ টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে গরম গরম চায়ের মতো পান করে ফেলুন। ভালো ফলাফল পেতে সকালে খালি পেটে একবার এবং রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে একবার এই পানীয়টি পান করুন। পেটের মেদ দ্রুত কমবে।

আপেল:

আপেলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, পটাশিয়াম এবং ফাইবা। যা অনেকটা সময় ধরে পেটে থাকে এবং ক্ষুধার উদ্রেক কমায়। সকালের নাস্তা কিংবা বিকেলের খাবারে অথবা রাতে কোনো ভারী খাবারের পরিবর্তে আপেল খেলে তা পেটের মেদ কমাবে।

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply