,
আপডেট

সর্বদা সুস্থ থাকার ৫টি জরুরী মূলমন্ত্র

স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল, এই কথাটি আমরা সবাই জানি। যারা সুস্বাস্থ্যের অধিকারী তারা জীবনে অনেক বেশি সুখী থাকেন। ভাবছেন কীভাবে? সুস্থ দেহ এই সকল সুখের মূলে। মানুষ যখন সুস্থ ও স্বাভাবিক শরীরের অধিকারী হয়ে থাকেন তখন আপনা আপনিই আত্মবিশ্বাস বাড়ে। আত্মবিশ্বাস বাড়লে সাধারণ কাজকর্মের আগ্রহ ও স্পৃহা বাড়ে।

এতে করে জীবনে উন্নতিও হয়। কিন্তু যদি স্বাস্থ্য ভাল না থাকে তাহলে কাজে কর্মে শত ভাগ মন বসানো সম্ভব হয় না। কারণ শরীর ভালো না থাকার কারণে কাজই করতে ইচ্ছা হয় না। তাই আমাদের নিজেদের স্বাস্থ্য সম্পর্কে অবশ্যই সচেতন হওয়া উচিৎ। তাহলে জেনে নিন সুস্থ থাকার ৫টি প্রধান মূলমন্ত্র।

ফিট রাখুন দেহ:

প্রতিদিনের কাজকর্মে শারীরিক পরিশ্রমের প্রতি বেশি নজর দিন। দেহকে সুস্থ রাখতে দেহের ফিট থাকা অত্যন্ত জরুরী। সকালবেলা ১০-১৫ মিনিট ব্যায়াম/জগিং/ হাঁটাহাঁটি করুন। কিংবা সকালের সিগ্ধ আলোয় খানিকক্ষণ যোগ ব্যায়াম করে নিতে পারেন। দিনের বেলা একটানা একজায়গায় বেশিক্ষণ বসে থাকবেন না।

আপনি যদি ডেস্ক জব করেন তখন প্রতি ২০-২৫ মিনিট পর উঠে খানিকক্ষণ হাঁটাহাঁটি করে নিন। লিফট বা এক্সকেলেটরের পরিবর্তে সিঁড়ি ব্যবহার করুন। সময় বের করে নিয়ে শারীরিক ব্যায়াম করে দেহকে ফিট রাখার চেষ্টা করুন।

ভালো খাদ্যাভ্যাস:

খাবার আমাদের সুস্থ দেহের জন্য সব চাইতে প্রয়োজনীয় উপাদান। খাবার থেকে আমরা শক্তি পাই এবং আমাদের দেহ বেড়ে ওঠে। আমাদের দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতির জন্যও খাবার কাজ করে। তাই খাবারের দিকে আমাদের খুব ভালো করে গুরুত্ব দেয়া উচিৎ। প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় তাজা খাবার রাখা উচিৎ।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

মৌসুমি ফলমূল, ফ্যাটবিহীন খাবার এবং প্রচুর শাকসবজি রাখুন খাবার তালিকায়। ফাস্ট ফুড জাতীয় খাবার যতো এড়িয়ে চলবেন ততোই ভালো। দেহের জন্য প্রয়োজনীয় ভিটামিন ও মিনারেলস সমৃদ্ধ খাবার পরিমিত পরিমানে খাওয়ার অভ্যাস করুন। এবং প্রচুর পরিমানে পানি পান করুন। দিনে প্রায় ৬-৮ গ্লাস পানি পান করুন।

মানসিক চাপ মুক্ত থাকুন:

মানসিক চাপ দেহের জন্য অনেক বেশি ক্ষতিকর। আমরা যখন মানসিক চাপে থাকি তখন আমাদের মস্তিষ্ক কর্মক্ষমতা হারাতে থাকে। মানসিক চাপের কারনে মস্তিষ্কের সেল নষ্ট হওয়া শুরু হয়। উচ্চ রক্ত চাপের সমস্যা শুরু হয়। মানসিক চাপে থাকলে দেহের ইমিউন সিস্টেম ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে পরে। তাই যতোটা সম্ভব মানসিক চাপ মুক্ত থাকার চেষ্টা করুন।

পরিমিত পরিমাণ বিশ্রাম নিন:

দেহকে সুস্থ রাখতে শারীরিক পরিশ্রম যতোটা জরুরী ঠিক তেমনই অনেক জরুরী পরিমিত পরিমাণ বিশ্রাম নেয়া। ভালো ঘুম শরীরের সুস্থতার জন্য অনেক বেশি জরুরী।

ঘুমের মাত্রা কম এবং ঘুমের সমস্যা হলে দেহে বাসা বাধে নানা মারাত্মক রোগ। ঘুম ভালো হলে মস্তিস্কের নিউরন নতুন ভাবে কাজ করার জন্য তৈরি হয়। তাই সুস্থ থাকতে প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময়ে ঘুমুতে যান এবং ৬-৮ ঘণ্টা ঘুমানোর অভ্যাস রাখুন।

সামাজিকতা বজায় রাখুন:

গবেষণায় দেখা যায় যে সকল মানুষেরা সামাজিকতা বজায় রেখে চলেন ও সামাজিক ভাবে বেশ জনপ্রিয় তিনি আর দশজন সাধারণ মানুষের থেকে বেশি সুস্থ ও মানসিক ভাবে শান্তিতে থাকেন।

কারন সকলের সাথে বসে খানিকক্ষণ সময় ব্যয় করা এবং সমস্যার কথা বার্তা আদান প্রদানের মাধ্যমে সমস্যার সমাধানের চিন্তার উন্নতি মানুষকে হাসিখুশি রাখতে বেসশ সাহায্য করে। এতে মানসিক চাপও দূর হয়। ফলে মানুষ স্বাভাবিকভাবেই বেশ সুস্থ এবং সতেজ অনুভব করেন।

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply