,
আপডেট

নাস্তায় যে খাবারগুলো খেলে দীর্ঘসময় ক্ষুধা লাগবে না

সকালের নাস্তা নিয়ে অনেকেই বেশ দ্বিধা দ্বন্দ্বে ভোগেন। যা কিছুই খান না কেন একটু পরেই ক্ষুধা লেগে যায়। ফলে কর্মস্থলে কিংবা ক্লাসে পেটে ক্ষুধা নিয়ে অপেক্ষা করতে হয় দুপুর পর্যন্ত অথবা এক ফাঁকে গিয়ে বাইরের অস্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে নিতে হয়।

কিছু খাবার আছে যেগুলো খেয়ে বেশ দীর্ঘ সময় পর্যন্ত ক্ষুধার অনুভূতি হয় না এবং শরীরে প্রচুর শক্তি যোগায়। আসুন জেনে নেয়া যাক সকালের নাস্তার জন্য এমন ৫ টি খাবার সম্পর্কে।

ডিম:

পেনিংটন বায়ো মেডিক্যাল রিসার্চ সেন্টারের গবেষণা থেকে জানা গিয়েছে যে সকালের নাস্তায় ডিম খেলে দীর্ঘ সময় পর্যন্ত ক্ষুধা লাগে না এবং শরীরে প্রচুর কর্মশক্তি পাওয়া যায়। সকালের নাস্তায় ডিম খেলে সহজে ক্ষুধা লাগে না বলে যারা ওজন সমস্যায় ভোগেন তাদেরকে সকালের নাস্তায় প্রতিদিন ডিম খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকরা।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

বাদাম:

বাদামে আছে ভালো কোলেস্টেরল যা হার্টের জন্য খুবই উপকারী। বাদামে প্রচুর ফাইবারও আছে যা দীর্ঘ সময় পর্যন্ত ক্ষুধার অনুভূতি তৈরী হতে দেয় না। তাই সকালের নাস্তায় ১৫/২০ টি বাদাম খেয়ে নিলে দুপুর এর আগে ক্ষুধা লাগার সম্ভাবনা কমে যায়। ফলে সকালের নাস্তার পর বাইরের অস্বাস্থ্যকর খাবার এড়িয়ে চলা যায়।

ভেজিটেবল স্যুপ:

স্যুপকে মূলত অ্যাপিটাইজার বলা হলেও সকালের নাস্তার সাথে এক বাটি স্যুপ খেয়ে নিলে বেশ অনেকটা সময় পেট ভরা থাকে। পেনসিলভেনিয়া স্টেট ইউনিভার্সিটির গবেষণায় দেখা গিয়েছে যারা সকালের নাস্তায় এক বাটি ভেজিটেবল স্যুপ খায় যাদের দুপুরের খাবারে কমপক্ষে ১০০ ক্যালরি খাবার কম খেয়েছে।

প্রতিদিন সকাল বেলা ফাইবার সমৃদ্ধ সবজির স্যুপ খেলে সারাদিন একটু পর পর ক্ষুধা লাগার সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

কলা:

সকালের নাস্তার সঙ্গে প্রতিদিন দুটি করে কলা খাওয়ার অভ্যাস করুন। কলা দীর্ঘ সময় ধরে পেট ভরে রাখে এবং সারাদিন প্রচুর শক্তি যোগায়। তাই সকালের নাস্তা খেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে ক্ষুধা নিবারণ করতে চাইলে প্রতিদিন দুটি করে কলা খেয়ে নিন নাস্তা খাওয়ার পরে।

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply