,
আপডেট

রংধনু খাবার কেন খাবেন?

রংধনু খাবার। এই নামটি শুনলে অনেকে মনে করতে পারেন এটি হয়তো নতুন কোনো খাবারের নাম। আসলে রংধনু খাবার বলতে বোঝায় বিভিন্ন ধরনের রঙিন ফলমূল ও শাকসবজির সমন্বয়ের খাবার তালিকা।

রঙিন ফলমূল ও শাকসবজির স্বাস্থ্য উপকারিতা অনেক বেশি। তাই খাবার তালিকা তৈরির সময় রংধনুর মত রঙিন ফলমূল ও শাকসবজির ভূমিকা মনে রাখতে হবে।

রঙিন ফলমূল ও শাকসবজিতে পুষ্টির মান বেশি। কেননা যে সব পিগমেন্ট সবজি ও ফলকে রঙিন করে তা আমাদের শরীরের জন্য অত্যন্ত উপকারী। বেশিরভাগ পিগমেন্টই হচ্ছে অ্যান্টি-এইজিং ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট উপাদান। এইসব পিগমেন্ট আমাদের শরীরের বিভিন্ন অংশে কাজ করে থাকে।

কিছু কাজ করে আমাদের চুলের জন্য, কিছু কাজ করে কোমল ত্বকের জন্য। মোটকথা এইসব পিগমেন্ট আমাদের দেহের প্রতিটি অংশে আলাদা ভাবে কাজ করে ভেতর থেকে আরও সুন্দর করে তোলে। অ্যান্টি-এইজিং পিগমেন্ট আমাদের ত্বককে বয়সের ছাপ থেকে রক্ষা করে।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট আমাদের দেহকে বিভিন্ন ধরনের রোগের হাত থেকে রেহাই দেয়, রক্তকে শুদ্ধ করে। একটি নতুন গবেষণা মতে, রঙিন ফলমূলে বিদ্যমান অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ডায়বেটিস রোগীদের স্মৃতিশক্তি ও বোধশক্তি রক্ষা করে।

কিন্তু সকল ধরনের রঙিন পিগমেন্ট আমরা উদ্ভিদ থেকে পেয়ে থাকি। এদেরকে হাইপো-কেমিকেল বলা হয়। উদ্ভিদ ছাড়া অন্য কোনোভাবে এই ধরনের পিগমেন্ট পাওয়া যায় না।

হাইপো-কেমিকেল অ্যান্টি-এইজিং থেকে শুরু করে ওজন কমানোর মত সব কাজে আমাদের শরীরকে তৈরি করতে পারে। যত বেশি রকমের রঙিন ফলমূল শাকসবজি তত রকমের উপকারিতা।

গবেষণায় দেখা যায় যে, যারা প্রাকৃতিক ভাবে রঙিন সকল ধরনের ফলমূল ও শাকসবজি প্রতিদিনকার খাদ্য তালিকায় রাখেন তাদের কম বয়েসি দেখায় এবং তারা সু-স্বাস্থ্যের অধিকারী।

পরবর্তী সময়ে বাজার থেকে ফলমূল ও শাকসবজি কেনার সময় রঙিন ফলমূল ও শাকসবজি বেছে নিন। এতে করে একটি রংধনু খাদ্য তালিকা করে শরীরকে সহজেই সুস্থ রাখতে পারবেন।

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply