খেজুর খান সারা বছর | হেলথ বার্তা
,
আপডেট

খেজুর খান সারা বছর

খেজুরের কথা উঠলেই কেমন করে যেন রোজার দিনগুলোর কথা মনে পড়ে যায়। রোজার মাসটা আমরা খেজুর খাই। তবে বছরের অন্য দিনগুলোতে কি শখ করে খাওয়া হয় খেজুর? সারা বছর খেজুর কিন্তু বাজারে মেলে। আর খাওয়াও উচিত বছর জুড়ে।

খেজুর যেমন সুস্বাদু তেমনি পুষ্টিগুন বিচারেও অনন্য। পাশাপাশি বিভিন্ন ধরণের রোগব্যাধি উপশমেও বেশ কার্যকর। খেজুরের মধ্যে আছে ক্যালসিয়াম, সালফার, আয়রন, পটাশিয়াম, ফরফরাস, ম্যাঙ্গানিজ, কপার, ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন বি৬, ফলিক এসিড, আমিষ, শর্করাসহ একাধিক খাদ্যগুন।

খেজুরের বিভিন্ন ধরণের গুণাবলি নিয়ে দেখুন গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য।

ক্যানসার প্রতিরোধ :

খেজুর পুষ্টিগুনে সমৃদ্ধ এবং প্রাকৃতিক আঁশে পূর্ন। এক গবেষনায় দেখা যায় খেজুর পেটের ক্যানসার প্রতিরোধ করে। আর যারা নিয়মিত খেজুর খান তাদের বেলায় ক্যানসারে ঝুকিটাও কম থাকে।
দুর্বল হৃৎপিন্ড : খেজুর হৃৎপিন্ডের কার্যমতা বাড়ায়। তাই যাদের দুর্বল হৃৎপিন্ড খেজুর হতে পারে তাদের জন্য সবচেয়ে নিরাপদ ঔষধ।

মুটিয়ে যাওয়া রোধে :

কয়েকটা মাত্র খেজুর ুধার তীর্বতা কমিয়ে দেয়। এবং পাকস্থলীকে কম খাবার গ্রহনে উদ্বুদ্ধ করে। এই কয়েকটা খেজুরই কিন্তু শরীরের প্রয়োজনীয় শর্করার ঘাটতি পূরন করে দেয় ঠিকই।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

মায়ের বুকের দুধ :

খেজুর বুকের দুধ খাওয়ানো মায়েদের জন্য সমৃদ্ধ এক খাবার। এই খেজুর মায়ের দুধের পুষ্টিগুন আরো বাড়িয়ে দেয়। এবং শিশুর রোগ প্রতিরোধ মতা বাড়ায়।

হাড় গঠনে :

ক্যালসিয়াম হাড় গঠনে সহায়ক। আর খেজুরে আছে প্রচুর পরিমান ক্যালসিয়াম। যা হাড়কে মজবুত করে।

অন্ত্রের গোলযোগ :

অন্ত্রের কৃমি ও তিকারক পরজীবী প্রতিরোধে খেজুর সহায়ক। এবং খেজুর অন্ত্রে উপকারী ব্যাকটেরিয়া তৈরী করে।

দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধিতে :

খেজুর দৃষ্টি শক্তি বাড়ায়। সেই সাথে রাত কানা রোগ প্রতিরোধেও খেজুর অত্যন্ত কার্যকর।

কোষ্ঠ কাঠিন্য :

খেজুরে আছে এমন সব পুষ্টি গুন। যা খাদ্য পরিপাকে সাহায্য করে। এবং কোষ্ঠ কাঠিন্য রোধ করে।

সংক্রমন :

যকৃতের সংক্রমনে খেজুর উপকারী। এছাড়া গলা ব্যথা, বিভিন্ন ধরনের জ্বর, সর্দি, এবং ঠান্ডায় খেজুর উপকরী।

বিষক্রিয়া :

খেজুর অ্যালকোহল জনিত বিষক্রিয়ায় বেশ উপকারী। ভেজানো খেজুর খেলে বিষক্রিয়ায় দ্রুত কাজ করে।

শিশুদের রোগ বালাই :

শিশুদের জন্যও খেজুর ভারী উপকারী। খেজুর শিশুদের মাড়ী শক্ত করতে সাহায্য করে।এবং কোন কোন ক্ষেত্রে ডায়রিয়াও প্রতিরোধ করে।

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply