,
আপডেট

কাশির জন্য কিছু প্রাকৃতিক ঔষধ

ঋতুবদল হচ্ছে সাথে সাথে বিভিন্ন রোগ এর সংক্রমণও লক্ষণীয়। ঠাণ্ডা, কাশি,জ্বর ইত্যাদি বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই, কাশি হবার পর ডাক্তার এর কাছে যাবার আগেই ঘরে বসে কিছু প্রাকৃতিক ঔষধ খেয়ে দেখতে পারেন।

শণ, মধু ও লেবু:

শণকে প্রথমে গরম পানি দিয়ে ফুটাতে হবে। এর পানিটি আঠালো রকমের হয়। এই পানিটি শ্বাসনালীর জন্য অত্যন্ত ভালো। লেবু ও মধু এক হয়ে অ্যান্টিবায়টিক এর ন্যায় কাজ করে। তিনটি একত্রিত হয়ে যে সিরাপটি তৈরি করা হয় তা খুব সহজেই কাশি দূর করে। ২,৩ চামুচ শণকে এক কাপ পানি দিয়ে সিদ্ধ করে পানিগুলো নিয়ে তার সাথে ৩ চামচ মধু ও ৩ চামচ লেবুর রস মিশিয়ে ১ চামচ করে খাবেন।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

গোল মরিচ এর চা:

যাদের ভিজা কাশি তারা চা এর সাথে গোল মরিচ এর গুড়া মিশিয়ে খেতে পারেন। এতে কাশি কমে যাবে। ইংল্যান্ড ও চাইনিজ ঔষধ এ গোল মরিচ ব্যাবহার করা হয়। চা তে চিনির বদলে মধু ব্যাবহার করতে হবে। এতে চা অ্যান্টিবায়টিক এর ন্যায় কাজ করবে। শুষ্ক কাশির জন্য এই চা খাওয়া ঠিক হবে না।

দ্রুত কাশি দূর করার জন্য লেবু:

একটি লেবুর চার ভাগের এক ভাগের সাথে লবণ ও গোল মরিচ মিশিয়ে খেয়ে দেখেন। সাথে সাথে কাশি কমে যাবে।

গরম দুধ পান করুন:

গরম দুধ এর সাথে মধু মিশিয়ে খেয়ে ফেলুন। এতে কফ জমা থাকলে তা বের হয়ে যাবে। আপনার কাশিও কমে যাবে।

কাজুবাদাম:

কিছু কিছু প্রাচীন ঐতিহ্যে পাওয়া যায়, কাজু বাদাম কাশি দূর করে। এর জন্য প্রথমে কাজুবাদাম বেঁটে নিয়ে তার সাথে কমলার রস মিশিয়ে খেয়ে ফেলুন। এতে কাশির মাত্রা কিছুটা কমে যাবে।

কাশি হলে উপরের ঔষধ গুলো খেয়ে দেখতে পারেন। তবে ডাক্তারকে অবশ্যই দেখাবেন। এইগুলো তো কিছু সময় আপনাকে কাশি থেকে মুক্তি দিবে। সম্পূর্ণ মুক্তি পাবার জন্য অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিবেন।

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply