তৈলাক্ত ত্বক নিয়ে ভাবছেন, জেনে নিন এর উপকারিতা | হেলথ বার্তা
,
শিরোনাম

তৈলাক্ত ত্বক নিয়ে ভাবছেন, জেনে নিন এর উপকারিতা

তৈলাক্ত ত্বক নিয়ে ভাবছেন? বেশির ভাগ মানুষের কাছেই তৈলাক্ত ত্বক মানেই তা অসস্থিকর এবং এর জন্য অনেকেই হিনমন্যতায় ভুগে থাকেন। কিন্তু তৈলাক্ত ত্বক সবসময় খারাপ না এবং এ নিয়ে এখন আর অসস্থি হওয়ারও আর কিছুই নেই।

কারন তৈলাক্ত ত্বক থেকে আপনি পাচ্ছেন ৫টি সুবিধা। চলুন জেনে নেওয়া যাক তৈলাক্ত ত্বক হতে আপনি কি কি সুবিধা পাচ্ছেন:

চেহারায় বয়সের ছাপ পড়ে দেড়িতে:

এক গবেষণায় দেখা গেছে শুষ্ক ত্বকের তুলনায় তৈলাক্ত ত্বক চেহারায় বয়সের ছাপ দেরিতে ফেলে। অন্যদিকে তুলনামূলক কম সময়ে দ্রুতই চেহারায় বয়সের ছাপ ফেলে দেয় শুষ্ক ত্বক।

প্রাকৃতিক ভাবে উজ্জ্বল ত্বক:

তৈলাক্ততা ত্বককে উজ্জ্বলতা বাড়িয়ে মসৃন করে তোলে, যা প্রাকৃতিক ভাবেই চেহারাকে বেশি সতেজ ও উজ্জ্বল করে। অনেকেই হয়তো ত্বককে উজ্জ্বল ও চকচকে করতে দামি প্রসাধনী ব্যবহার করেন। তৈলাক্ত ত্বক হলে তার আর দরকার পড়েনা।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

 ত্বকে স্বাভাবিকতা বজায় থাকে:

তৈলাক্ততার কারণে ত্বককে স্বাভাবিক ও কোমল দেখায়, যে কারণে আপনাকে ব্যয়বহুল ডে-নাইট ক্রিম ব্যবহার করতে হয় না। এ ধরনের ত্বক আপনার চেহারাকে সবসময়ই স্বাভাবিকভাবে আর্দ্র রাখবে।

ঋতু উপযোগী:

তৈলাক্ত ত্বক সকল ঋতুতেই আপনার জন্য বিষেশ উপকারি। এটা স্বাভাবিকভাবে আপনার ত্বকের যত্নে কাজ করে যাবে। যে কোন ঋতুতে আপনাকে ত্বকের ক্ষতি থেকে রক্ষা করবে ও আপনাকে দেবে কমনিয়তা ।

স্বল্প যত্ন:

ত্বক তৈলাক্ততার কারণে এ ধরণের ত্বকের জন্য খুব বেশি যত্নের প্রয়োজন হয় না শুধুমাত্র ফেস পরিচ্ছন্ন রাখতে যতটুকু প্রয়োজন ততটুকু ও বাইরে বেরুনোর জন্য সাধারন ফেস পাউডার ব্যবহার করলেই চলে।

এখন থেকে তৈলাক্ত ত্বক নিয়ে আর কোন দুশ্চিন্তা নয়। যাদের তৈলাক্ত ত্বক আছে তারা আত্মবিশ্বাস অর্জন করুন ও নিজের মত করে সাজুন যে কোন পার্টিতে। আর ত্বক ভালো রাখতে নিয়মিত পরিমান মত পানি পান করুন।

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে