শীতের আতঙ্ক জয়েন্টে ব্যথা, জয়েন্টে ব্যথা থেকে মুক্তির উপায় | হেলথ বার্তা
,
আপডেট

শীতের আতঙ্ক জয়েন্টে ব্যথা, জয়েন্টে ব্যথা থেকে মুক্তির উপায়

জাঁকিয়ে পড়েছে শীত৷ কিন্তু যারা ব্যথা-বেদনার সময় ভুগছেন তাদের কাছে শীতকালটা একেবারেই সুখপ্রদ নয়৷ বিশেষ করে সারা বছরই যাদের কমবেশি জয়েন্টে ব্যথা থাকে৷ কারণ শীতকালেই বাড়ে জয়েন্টে ব্যথার সমস্যা৷ কেননা শীতকালে আমাদের বডি মুভমেন্ট ঠান্ডায় অনেকটাই কমে যায়৷ আর এক জায়গায় বসে বসে বাড়তে থাকে ব্যথা-বেদনা৷ সঙ্গে থাকে ভুলভাল খাওয়া-দাওয়া, শোওয়া-বসার ভঙ্গিমা ঠিক না রাখার মতো বেশ কয়েকটি কারণ৷

কিন্তু এতদিনের ট্রেন্ড এবার খতম হতে চলেছে৷ কারণ আপনার জন্যই আমরা নিয়ে এসেছি এই শীতে জয়েন্টের ব্যথা দূর করার কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি-

১) ওজন কমানঃ জয়েন্টের ব্যথার একটা বড় কারণ অতিরিক্ত ওজন৷ তাই শীত পড়ার কয়েকমাস আগে থেকে সচেতন হন৷ আর যদি না-ও হয়, তাহলে এখন প্রতিদিন ঘণ্টাখানেক করে হাঁটুন৷তবে প্রথমেই জোরে জোরে একঘণ্টা হাঁটবেন না৷আস্তে আস্তে সময় বাড়ান৷

২) এক্সারসাইজঃ ফিজিওথেরাপিস্টের পরামর্শে নিয়মিত এক্সারসাইজ করুন৷শরীরের হাড় ও মাংসপেশি এতে মজবুত থাকে, ঠিকমতো হয় রক্ত সঞ্চালনও৷ব্যথা কমে যাবে আস্তে আস্তে৷ তবে গোড়াতেই একা একা বাড়িতে এক্সারসাইজের রিস্কটা নেবেন না৷ বিশেষজ্ঞকে বাড়িতে ডেকে আনুন৷

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

৩) মাংসপেশি রাখুন মজবুতঃ জয়েন্টের আশেপাশে যেসব মাংসপেশি রয়েছে, সেগুলোকে মজবুত রাখা আপনার প্রাথমিক পদক্ষেপগুলোর অন্যতম৷এগুলো যদি দুর্বল থাকে, তাহলেই জাঁকিয়ে বসে জয়েন্ট পেন৷ তাই মাংসপেশি মজবুত করতে প্রতিদিন ওয়েট লিফটিং-এর মতো ব্যায়াম করুন৷

৪) ইউরিক অ্যাসিড কমানঃ অত্যধিক মাত্রায় প্রোটিনযুক্ত খাবার যেমন ডাল, রাজমা, পালংশাক আমাদের রক্তে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা বাড়ায়৷ আর তা থেকে বাড়ে জয়েন্ট পেন৷ তাই আপাতত শীতকালে খাদ্যতালিকা থেকে ওগুলোকে সযত্নে বাদ দিন৷আর মাসে অন্তত একবার রক্তে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা ঠিক রয়েছে কি না তা পরীক্ষা করে দেখুন৷

৫) সোজা হয়ে বসুনঃ আমরা অনেকেই এত ভুলভাল ভঙ্গিতে বসি বা শুই যে তাতে আমাদের ঘুম থেকে উঠে ব্যথায় কাবু হতে হয়৷ তবে ভুলেও আমরা ভঙ্গিমা পাল্টাই না৷ কিন্তু  জয়েন্ট পেনকে বাই বাই করতে হলে সবসময় সোজা হয়ে বসুন৷ এতে জয়েন্টের হাড় বা মাংসপেশিতে অতিরিক্ত চাপ পড়ে না৷

৬) খেয়াল রাখুনঃ চলাফেরা করতে বা এক্সারসাইজের সময় যদি জয়েন্ট পেন হয় বা বাড়ে, তাহলে দেরি করবেন না, অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন৷আর ভুলেও ব্যথা যখন খুব বাড়বে তখন এক্সারসাইজ করবেন না৷বা খুব  ভারী কিছু তুলবেন না৷

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে