শীতের আতঙ্ক জয়েন্টে ব্যথা, জয়েন্টে ব্যথা থেকে মুক্তির উপায় | হেলথ বার্তা
,
শিরোনাম

শীতের আতঙ্ক জয়েন্টে ব্যথা, জয়েন্টে ব্যথা থেকে মুক্তির উপায়

জাঁকিয়ে পড়েছে শীত৷ কিন্তু যারা ব্যথা-বেদনার সময় ভুগছেন তাদের কাছে শীতকালটা একেবারেই সুখপ্রদ নয়৷ বিশেষ করে সারা বছরই যাদের কমবেশি জয়েন্টে ব্যথা থাকে৷ কারণ শীতকালেই বাড়ে জয়েন্টে ব্যথার সমস্যা৷ কেননা শীতকালে আমাদের বডি মুভমেন্ট ঠান্ডায় অনেকটাই কমে যায়৷ আর এক জায়গায় বসে বসে বাড়তে থাকে ব্যথা-বেদনা৷ সঙ্গে থাকে ভুলভাল খাওয়া-দাওয়া, শোওয়া-বসার ভঙ্গিমা ঠিক না রাখার মতো বেশ কয়েকটি কারণ৷

কিন্তু এতদিনের ট্রেন্ড এবার খতম হতে চলেছে৷ কারণ আপনার জন্যই আমরা নিয়ে এসেছি এই শীতে জয়েন্টের ব্যথা দূর করার কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি-

১) ওজন কমানঃ জয়েন্টের ব্যথার একটা বড় কারণ অতিরিক্ত ওজন৷ তাই শীত পড়ার কয়েকমাস আগে থেকে সচেতন হন৷ আর যদি না-ও হয়, তাহলে এখন প্রতিদিন ঘণ্টাখানেক করে হাঁটুন৷তবে প্রথমেই জোরে জোরে একঘণ্টা হাঁটবেন না৷আস্তে আস্তে সময় বাড়ান৷

২) এক্সারসাইজঃ ফিজিওথেরাপিস্টের পরামর্শে নিয়মিত এক্সারসাইজ করুন৷শরীরের হাড় ও মাংসপেশি এতে মজবুত থাকে, ঠিকমতো হয় রক্ত সঞ্চালনও৷ব্যথা কমে যাবে আস্তে আস্তে৷ তবে গোড়াতেই একা একা বাড়িতে এক্সারসাইজের রিস্কটা নেবেন না৷ বিশেষজ্ঞকে বাড়িতে ডেকে আনুন৷

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

৩) মাংসপেশি রাখুন মজবুতঃ জয়েন্টের আশেপাশে যেসব মাংসপেশি রয়েছে, সেগুলোকে মজবুত রাখা আপনার প্রাথমিক পদক্ষেপগুলোর অন্যতম৷এগুলো যদি দুর্বল থাকে, তাহলেই জাঁকিয়ে বসে জয়েন্ট পেন৷ তাই মাংসপেশি মজবুত করতে প্রতিদিন ওয়েট লিফটিং-এর মতো ব্যায়াম করুন৷

৪) ইউরিক অ্যাসিড কমানঃ অত্যধিক মাত্রায় প্রোটিনযুক্ত খাবার যেমন ডাল, রাজমা, পালংশাক আমাদের রক্তে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা বাড়ায়৷ আর তা থেকে বাড়ে জয়েন্ট পেন৷ তাই আপাতত শীতকালে খাদ্যতালিকা থেকে ওগুলোকে সযত্নে বাদ দিন৷আর মাসে অন্তত একবার রক্তে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা ঠিক রয়েছে কি না তা পরীক্ষা করে দেখুন৷

৫) সোজা হয়ে বসুনঃ আমরা অনেকেই এত ভুলভাল ভঙ্গিতে বসি বা শুই যে তাতে আমাদের ঘুম থেকে উঠে ব্যথায় কাবু হতে হয়৷ তবে ভুলেও আমরা ভঙ্গিমা পাল্টাই না৷ কিন্তু  জয়েন্ট পেনকে বাই বাই করতে হলে সবসময় সোজা হয়ে বসুন৷ এতে জয়েন্টের হাড় বা মাংসপেশিতে অতিরিক্ত চাপ পড়ে না৷

৬) খেয়াল রাখুনঃ চলাফেরা করতে বা এক্সারসাইজের সময় যদি জয়েন্ট পেন হয় বা বাড়ে, তাহলে দেরি করবেন না, অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন৷আর ভুলেও ব্যথা যখন খুব বাড়বে তখন এক্সারসাইজ করবেন না৷বা খুব  ভারী কিছু তুলবেন না৷

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে