,
আপডেট

নারীরা জেনে রাখুন “ব্রা” সম্পর্কে কিছু দরকারি তথ্য

নারীর দৈনন্দিন জীবনের সবচাইতে পোশাকগুলোর মাঝে সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ব্রা। এটা এমন এক পোশাক, যেটা প্রত্যেক নারী প্রতিদিনই ব্যবহার করেন। শুধু সৌন্দর্য নয়, নারীর স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রেও একটি বড় বিষয় এই ব্রা।

সঠিক মাপের ব্রা পরছেন তো? কীভাবে বুঝবেন এটাই সঠিক ও স্বাস্থ্যসম্মত ব্রা আপনার জন্য? কেন নিজের ব্রাগুলোকে করতে হবে বিশেষ যত্ন? আর কেনই বা এই পোশাকটি সম্পর্কে সচেতন থাকা জরুরী? প্রশ্নগুলোর জবাব খুঁজে নিতে পারেন এই ফিচার থেকে। জেনে রাখুন ব্রা-কে ঘিরে ৬টি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য।

১) অতিরিক্ত ঢিলেঢালা ব্রা পরার অভ্যাস ত্যাগ করুন

অনেকেই আছেন যে বেশী আরাম খুঁজতে গিয়ে একেবারে ঢিলেঢালা ব্রা পরিধান করেন। যাকে বলে রীতিমত কোনরকম ব্রা পরা। এই কাজটি মোটেও করবেন না। মনে রাখবেন, ব্রা পোশাকটির কাজ হচ্ছে বাইরের আঘাত থেকে আপনার স্তনের সুরক্ষা, স্তনের আকার-আকৃতি ঠিক রাখতে সহায়তা করা এবং পোশাক পরার পর আপনাকে সুন্দর দেখানো। যদি আপনি বেশী ঢিলেঢালা ব্রা পরেন, তাহলে এগুলোর কোন উদ্দেশ্যই সফল হয় না। তাই ঢিলেঢালা ব্রা পরার বাজে অভ্যাসটি ত্যাগ করুন।

২) ২/১ টি নয়, সপ্তাহের ৭ দিনের জন্য কমপক্ষে ৭টি ব্রা চাই

আপনি একই পোশাক, প্যান্টি বা মোজা একটানা বেশিদিন পরেন না কেন? স্বভাবতই এগুলো ঘামে ভেজে প্রতিদিন। দুর্গন্ধ তো হয়ই, সাথে হয় বাড়তি দুর্গন্ধ। ঠিক একই কারণে একটি ব্রা পর পর দুদিন পরবেন না কখনোই। সপ্তাহের সাতদিনের জন্য কমপক্ষে ৭টি ব্রা রাখুন। বেশিরভাগ নারীই ব্রা প্রতিদিন ধোয়ার কাজটি করেন না। কিন্তু একটি ব্রা একদিন পরার পর ধুয়ে ফেলাটাই সবচাইতে ভালো আপনার জন্য।

  (এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয় ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি - ঠিকানা - YouTube.com/HealthBarta)

৩) কীভাবে বুঝবেন মাপটি ঠিক আছে?

ব্রা বেশী টাইট তো পরা যাবেই না, বেশী ঢিলেঢালাও পরা যাবে না। কীভাবে বুঝবেন মাপটি সঠিক আছে? ব্রায়ের দুটি কাপের মাঝে যে জায়গাটি থাকে, এই জায়গাটি লেগে থাকবে আপনার ত্বকের সাথে। একটুও ফাঁক থাকবে না। এবং ব্রায়ের ফিতাগুলো আপনার ত্বক কেটে বসে যাবে না। তাহলেই বুঝবেন মাপটি সঠিক।

৪) একটু যত্ন নিয়ে পরিষ্কার

ব্রা যে প্রতিদিন ধুতে হবে, সেটা আগেই বলেছি। প্রতিদিন ধোয়ার পাশাপাশি এই পোশাকটি নিয়ে একটু বিশেষ যত্নশীল হলে আপনার জন্যই ভালো। ওয়াশিং মেশিনে না ধুয়ে হাতে ধোবেন, পারলে ক্ষারীয় সাবান ব্যবহার না করে কোন মাইলড ডিটারজেন্ট ব্যবহার করুন, যেগুলো বাচ্চাদের পোশাক ধোবার ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। এঁটে আপনার ত্বক থাকবে ভালো, ব্রাগুলো টিকবেও বহুদিন।

৫) ব্রা-এর সাইজ পরিবর্তিত হতেই পারে

প্রতিবার ব্রা কেনার সময়ই নিজের ব্রা সাইজ একবার যাচাই করে নিন। কারণ স্তনের আকার পরিবর্তিত হতে পারে, বাড়তে বা কমতে পারে আপনার ওজন। তাছাড়া ব্র্যান্ড ভেদেও সাইজ গড়মিল।

৬) রাখুন একটু গুছিয়ে

ব্রা গুলো কি অন্য পোশাকের সাথেই রাখেন? এই কাজটি করবেন না। ব্রা, প্যান্টি ইত্যাদি একান্ত ব্যক্তিগত পোশাকগুলো আলাদা একটি ড্রয়ারে রাখুন। এতে কাপড়গুলো পরিষ্কার থাকবে বেশী। ব্রা রাখার সময় হুক টকে রাখুন।

কি করে বুঝবেন আপনি ভুল ব্রা (বক্ষবন্ধনী) পরছেন? ভুল সাইজের ব্রা চিহ্নিত করার প্রধান লক্ষন সমুহ জেনেনিন এখান থেকে

বিশেষ মুহূর্তে যৌন দুর্বলতা, শুক্র স্বল্পতা, মিলনে সময় সময় কম, লিঙ্গের শিথিলতা সহ যে কোন যৌন সমস্যায় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং স্থায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন। যোগাযোগ করুন ডাক্তার নাজমুলঃ 01799 044 229

আপডেট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Reply